ইংল্যান্ডের রামসগেটের মেয়র জন্মভূমি সিংগাইরে কলেজ করতে চান

2

শিবলী নোমানী : নিজ জন্মভূমি মানিকগঞ্জের সিংগাইরে কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে চান ইংল্যান্ডের রামসগেটের মেয়র রওশন আরা দোলন। সম্প্রতি দ্বিতীয় বারের মতো রামসগেটের মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করার পর ইত্তেফাককে তিনি এ ইচ্ছার কথা জানান। রওশন আরা দোলন গত বছর নভেম্বরে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের ১৯ হাজার কাউন্সিলরের মধ্যে সেরা হিসেবে পুরস্কৃত হন।

ইংলিশ সমুদ্র উপকূলীয় নগরী রামসগেট কাউন্সিলের মেয়র রওশন আরা দোলনের বাবা প্রকৌশলী রজ্জব আলী খান উচ্চশিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে যান ১৯৬৩ সালে। তিনি বাবা-মার সঙ্গে ১৯৭৭ সাল থেকে সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেন রয়েল চার্টার খ্যাত ইউনিভার্সিটি অব কেন্ট থেকে। পরে যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল লেবার পার্টির সঙ্গে যুক্ত হয়ে নানা সমাজসেবামূলক কাজ শুরু করেন। এরপর তিনি ২০১৯ সালে লেবার পার্টি থেকে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন লাভ করেন। এই নির্বাচনে তিনি প্রথম বারের মতো এশীয় বংশোদ্ভূত কোনো মুসলিম নারী ৫৬ কাউন্সিলরের মধ্যে সর্বাধিক ভোট পেয়ে বিজয় লাভ করেন।

স্থানীয় বাসিন্দা টম জে লন্ডন প্রতিনিধি অহিদুজ্জামানকে বলেন, ‘রওশন আরা তার শালীন-শোভন আচরণের মাধ্যমে আমাদের মনের গভীরে জায়গা করে নিয়েছেন। আমরা দলমত নির্বিশেষে তাকে ভোট দিয়েছি।’ অপর এক বাসিন্দা রেবেকা স্কট বলেন, ‘আমি যখনই কোনো কাজে তার কাছে গিয়েছি তখনই তাকে একজন ভালো বন্ধু হিসেবে পেয়েছি।’ বাংলাদেশি অভিবাসী বেলাল আহমেদ বলেন, ‘রওশন আরা এই এলাকায় দারুণ জনপ্রিয়। তিনি সত্যিই বাংলাদেশের এবং যুক্তরাজ্যে বাঙালি কমিউনিটির গর্ব।’

রওশন আরা বলেন, ‘আমি আমার জন্মস্থানকে কখনোই ভুলে যাইনি। আমার জন্মস্থান ইরতাকাশেমপুর কাঁঠালবাগান গ্রামে প্রায় প্রতি বছর বেড়াতে যাই। চেষ্টা করি সেখানকার পিছিয়ে থাকা নারীদের সহায়তা করতে। এ জন্য ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠা করেছি রামস-বাংলা মহিলা উন্নয়ন সংস্থা নামে একটি দাতব্য সংস্থা। এবার সিংগাইরে একটি কলেজ স্থাপন করতে চাই।’

রওশন আরা দোলন সিংগাইরের ইরতা প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণি পাশ করেন। তালেবপুর আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ার সময় মা-বাবার সঙ্গে যুক্তরাজ্যে চলে যান। তার স্বামী পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ার রেজাউর রহমান জামান ব্যবসায়ী। তিন বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে রওশন আরা দোলন সবার বড়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here