ইউক্রেনে সামরিক প্রশিক্ষণ উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ২২

8

অনলাইন ডেস্ক : ইউক্রেনে সামরিক উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে কমপক্ষে ২২ জন নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তিদের অধিকাংশ দেশটির বিমানবাহিনীর প্রশিক্ষণার্থী। দেশটির সরকারি জরুরি বিভাগ বলছে, উড়োজাহাজে মোট ২৭ জনের মধ্যে ২০ জন প্রশিক্ষণার্থী ও ৭ জন ক্রু ছিলন। এর মধ্যে দুজন মারাত্মক আহত হয়েছেন এবং কয়েকজন এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

গতকাল শুক্রবার দেশটির উত্তরাঞ্চলের খারকিভ শহরের কাছে উড়োজাহাজটি অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়। বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উড়োজাহাজটির নাম অ্যানটোনোভ-২৬। প্রশিক্ষণকাজে ব্যবহৃত উড়োজাহাজটিতে খারকিভ এয়ার ফোর্স ইউনিভার্সিটির প্রশিক্ষরত শিক্ষার্থীরা ছিলেন। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত চলছে।

দেশটির জরুরি বিভাগের সূত্র উল্লেখ করে বিবিসি জানিয়েছে, চুহাইভ শহরের সামরিক বিমানবন্দর থেকে দুই কিলোমিটারের মধ্যে দুর্ঘটনা ঘটে। তবে পূর্ব ইউক্রেনের রাশিয়ানপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে এ দুর্ঘটনার কোনো যোগসূত্র আছে কি না, তার কোনো সূত্র পাওয়া যায়নি। চুহাইভ থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে সরকারি বাহিনী রাশিয়ানপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে।

দুর্ঘটনাস্থলে আগুন লাগার পর তা নিভিয়ে ফেলা হয়। সেখানে উদ্ধার অভিযান চলছে। একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, গায়ে আগুন ধরা অবস্থায় ধ্বংসস্তূপ থেকে একজনকে দৌড়াতে দেখেছেন তিনি। তাঁকে সাহায্য করার জন্য ছুটে গিয়েছিলেন তাঁরা।

উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আন্তন গেরাশ্চেনকো সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘এটি বড় ধাক্কা। এ মুহূর্তে কারণ জানানো অসম্ভব। তদন্ত চলছে।’

আজ শনিবার ওই অঞ্চল পরিদর্শনে যাচ্ছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোডাইমার জেলেনস্কি।

খারকিভের আঞ্চলিক গভর্নর ওলেকসি কুচের বলেছেন, ‘প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, দুর্ঘটনার আগে একজন পাইলট উড়োজাহাজে একটি ইঞ্জিন নষ্ট হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here