এক পরিবারের চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার : কমিউনিটির ধারনা বাংলাদেশি

20

অনলাইন ডেস্ক: মারখামের একটি বাড়ী থেকে পুলিশ এক পরিবারের চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। রোববার বিকেলে টেলিফোন পেয়ে পুলিশ মারখামের ক্যাসলমোর এভিনিউর একটি বাড়ী থেকে চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার করে। এই সময় বাড়ীর সামনে থেকে ২০ বছরের এক যুবককে পুলিশ গ্রেফতার করে। এই হত্যাকান্ডে যুবকটি কী না সে ব্যাপারে পুলিশ স্পষ্ট করে বলেনি।

রহস্যজনক ভাবে মৃত্যুবরণকারী এই চারজনের পরিচায় সম্পর্কে কোনো তথ্য পুলিশ প্রকাশ করেনি। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেকেই নিহত চারজনকে বাংলাদেশি হিসেবে উল্লেখ করেছেন। কৃষিবিদ আবুল বাশার এক কমেন্টে বলেছেন, যে চারজনের ‍মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তাদের মধ্যে মেয়ে, মা-বাবা এবং নানী রয়েছেন। তিনি উল্লেখ করেন, কিছুদিন আগে মেয়ে তার মা মুক্তা জামান এবং বাবার ২৫তম মেয়ে বার্ষিকী উদযাপন করেছেন। ওই অনুষ্ঠানে কৃষিবিদ মোহাম্মদ বাশারের স্ত্রী কণ্ঠ শিল্পী নাফিয়া উর্মি গান গেয়েছেন। তিনি উল্লেখ করেন, মুক্তা জামান আমাদের অনেকের পরিচিত ছিলেন।

কমিউনিটির পরিচিত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব তানভীর কোহিনুর ফেসবুকে এক পোষ্টে বলেছেন, গত ২৯ জুন এক চমৎকার বাংলাদেশী দম্পতির ২৫তম বিবাহ বার্ষিকী তে উপস্থাপনা করেছিলাম। আজকের খবরে বারবার বলছে যে একটা বাসা থেকে চারটা লাশ উদ্বার করা হয়েছে, এটা নাকি তাদের বাসা। বিশ্বাস করতে পারছি না! খবরটা যেনো ভুল হয়। কিছুক্ষন পরে এক পোষ্টে তিনি উল্লেখ করেছেন, আহা! ঘটনা আসলেই সত্যি!

ইয়র্ক রিজিওনাল পুলিশের মুখপাত্র এন্ডি প্যাটেনডেন সাংবাদিকদের জানান, ক্যাসলমোর এবিনিউর ওই বাড়ীতে কেউ আহত হয়েছে টেলিফোনে এমন খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়ীতে যায়। বাড়ীতে প্রবেশের সময় বাড়ীর সামনে ২০ বছরের এক তরুনের সঙ্গে পুলিশের কথাবার্তা হয় এবং পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বাড়তে ডুকে চারটি মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃতদের পরিচয়, বয়স নারী কিংবা পুরুষ কোনো ধরনের তথ্যই পুলিশ প্রকাশ করেনি। পুলিশ বলেছে, তারা তদন্তের একেবারে প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। নতুনদেশ ডটকম

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here