কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রীকে ‘টেনে নামালো’ বিক্ষুব্ধরা

4

অনলাইন ডেস্ক : কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রী স্যার জন এ ম্যাকডোনাল্ডের ভাস্কর্যের ওপর আবারও হামলা হয়েছে; এবার এটি টেনে নিচে নামিয়েছেন বিক্ষুব্ধরা।

বিক্ষুব্ধরা পূর্বাঞ্চলীয় কুইবেক প্রদেশের মন্ট্রিলের ওই ভাস্কর্যটির সামনে জড়ো হওয়ার পর তা টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নামিয়ে ফেলেন বলে শুক্রবার জানিয়েছে বিবিসি।

এর আগেও কয়েকবার ভাংচুরের শিকার হয়েছে এই ভাস্কর্য। বারবার দাবি উঠেছে, কানাডার বিভিন্ন স্থান থেকে ম্যাকডোনাল্ডের সব মূর্তি সরিয়ে যাদুঘরে স্থানান্তর করতে হবে।

বিক্ষুব্ধরা বলছেন, ম্যাকডোনাল্ড কানাডার প্রথম প্রধানমন্ত্রী হলেও তিনি ছিলেন প্রচণ্ডভাবে বর্ণবাদী! তিনি কানাডার আদিবাসীদের দেখতে পারতেন না। কানাডার আদিবাসীদের সন্তানদের জোর করে ধরে এনে বিতর্কিত আবাসিক স্কুলে ভর্তি করানোর পিছনেও তার ভূমিকা ছিল জোরালো।

ভিডিওতে দেখা যায়, বিক্ষুব্ধরা ভাস্কর্যটি ঘিরে অবস্থান করছেন। উচ্চস্বরে কথাও বলছেন করছেন তারা। এক পর্যায়ে এটির সঙ্গে রশি বেঁধে টান দেওয়া হয়। এরপরই ভাস্কর্যটি নিচে পড়ে যায়। শরীর থেকে খুলে পড়ে যায় মাথাও।

প্রথম প্রধানমন্ত্রীর ভাস্কর্য টেনে নিচে নামানোর ঘটনাকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে মন্তব্য করেছেন কুইবেকের সরকারপ্রধান। তিনি বলেন, ঐতিহ্যের অংশ ধ্বংস করা কোনও সমস্যার সমাধান নয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here