কেবল নায়িকা না, পরীমনিকে অভিনেত্রীও বলতে হবে

11

বিনোদন ডেস্ক : ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়িকা পরীমনি। সম্প্রতি ফোর্বসের ‘এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকা’র তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে তার অভিনীত ‘বিশ্বসুন্দরী’ ছবিটি। এছাড়াও সম্প্রতি যুক্ত হয়েছেন নির্মাতা তৌকীর আহমেদের নতুন ছবি ‘স্ফু্লিঙ্গে। বুঝাই যাচ্ছে পরীর বৃহস্পতি এখন তুঙ্গে।

তবে বৃহস্পতি তু্ঙ্গে থাকা পরীমনি একদমই নাকি জানেন না ঘটনা কোন দিকে যাচ্ছে। ফোর্বসের ‘এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকা’র তালিকায় নিজের নামের খবরটি পাওয়ার পর আপনার কেমন লেগেছিলো পরীর? প্রশ্নের উত্তরেই জানতে পারবেন।

পরীর ভাষ্যে,বিষয়টি নিয়ে আমি ঘোরের মধ্যেই আছি। মনে হচ্ছে এখনও কি হচ্ছে তেমন একটা বুঝে উঠতে পারছিনা। গত মঙ্গলবার সকাল থেকেই হঠাৎ করে অনেক ফোন আসা শুরু করে। যার মধ্যে অনেক এসএমএস, প্রায়ই কনগ্রাচুলেশন। আমি ভাবলাম ১১ তারিখের জন্য মে বি। কারণ ‘বিশ্বসুন্দরী’ রিলিজ হচ্ছে তাই হয়তো সবাই শুভেচ্ছা জানাচ্ছে।ন। ওই সময় আমি রেডি হচ্ছিলাম, চয়নিকা চৌধুরী ছিলেন। উনি খুব তাড়াহুড়ো করছিলেন, চলো… ৪টার দিকে আমাদের একটা চ্যানেলে প্রোগ্রাম ছিল। আমরা রেডি হচ্ছিলাম, ওই সময় এত বেশি ফোন আসছিল যে আমি একটা পর্যায়ে একটু লাউড হয়ে গেলাম… এতবার ফোন, কী সমস্যা… এরপর রেগেই ফোনটা ধরলাম… পরে জানতে পারলাম এই ঘটনা।

এ বিষয়ে আগে ফোর্বসের পক্ষ থেকে পরীর সঙ্গে কোন যোগাযোগও করা। তবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজের নাম ছড়ানোয় বেশ খুশি পরী। জানালেন এখন স্বপ্নে পরিধি বেড়ে যাওযার কথা। পরী বলেন, খবরটি পাওয়ার পর একটা জিনিস রিয়েলাইজ করেছি। মানুষ তো স্বপ্ন দেখে, তার তো একটা কারণ থাকে স্বপ্ন দেখার। আমার মনে হয় ড্রিমটা একটু বড় হয়ে গেল। আরও ভালো ভালো কাজ করার চ্যালেঞ্জটা নিতে হবে। শুধু ফ্যান-ফলোয়ার না, অবশ্যই এটা কাজের জন্য…আসলে এই অর্জনটা আমার না। যারা আমাকে ভালোবেসেছেন, সাপোর্ট দিয়েছেন, আমি তাদের প্রতি অনেক বেশি কৃতজ্ঞ।

তৌকীর আহমেদের মতো নির্মাতার সিনেমায় যুক্ত হলেন। প্রস্তুতি কিভাবে কি নিচ্ছেন? উত্তরে পরী বলেন, তৌকীর আহমেদের নতুন সিনেমার নাম ‘স্ফুলিঙ্গ’। তার মতো বড় নির্মাতার ছবিতে আমি অভিনয় করছি এটা আমার বড় অর্জন। এবার আমাকে আর নায়িকা পরিচয় না, অভিনেত্রী পরিচয়েও পরিচিতি হবে। তবে ছবিটির জন্য এখনও আমার প্রস্তুতি নেয়া শুরু হয়নি। আজ থেকে ছবিটির শুটিং শুরু হচ্ছে। তবে আমি যোগ দেবো বেশ কিছুদিন পর। ততদিনে আমার গ্রুমিং হবে, প্রস্ততির পর্বটা এই সময়েই শেষ করবো।

পরীর কাছে রাখা হয় শেষ প্রশ্ন। বিশ্বসুন্দরী ছবিটি দর্শকরা কেনো দেখবেন? পরীর সোজা উত্তর। এতোদিন পর হলে নতুন ছবি মু্ক্তি পাচ্ছে। দেখতে তো যেতেই হবে। আর ছবিটি দেখলে কেউ হতাশ হবে না এটা হলফ করে বলতে পারি। কারণ চয়নিকাদি নাটকের জনপ্রিয় নির্মাতা। তার প্রথম পরিচালনা অবশ্যই খারাপ কিছু হবে না। তার রুম্মান রশিদ খানের গল্প ও চিত্রনাট্য। সঙ্গে আমার আর সিয়ামের প্রথম রসায়ন তো আছেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here