জন আব্রাহামের বিরুদ্ধে যেভাবে অপমানের ‘বদলা’ নেন ক্যাটরিনা!

15

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম ক্যাটরিনা কাইফ। ক্যাটরিনার শিডিউল পাওয়ার জন্য অনেক পরিচালককেই অপেক্ষা করতে হয়।

কিন্তু এমন একটা সময় ছিল, যখন একটি ছবির মাঝপথ থেকেই সরিয়ে দেওয়া হয় তাকে। সবটাই মুখ বুজে সহ্য করতে হয়েছিল ক্যাটরিনাকে।

২০০৩ সালে ‘বুম’ছবিতে আত্মপ্রকাশ হয় ক্যাটরিনার। ছবিটি বক্স অফিসে একেবারেই মুখ থুবড়ে পড়ে। ছবির সঙ্গে সঙ্গে ক্যাটরিনাও সকলের অগোচরেই রয়ে যান।
ফলে স্ট্রাগল শুরু হয় ক্যাটরিনার। সে সময়ই আরও একটি মুভির শ্যুটিং শুরু হয়। মুভির নাম ছিল ‘সায়া’।

এই মুভিতে ক্যাটরিনার বিপরীতে অভিনয় করছিলেন জন আব্রাহাম। জনও তখন উঠতি অভিনেতা তিনি।

মডেলিং থেকে তখন সবে বলিউডে পা রাখছেন জন। জন এবং ক্যাটরিনা দু’জনেই তখন ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন।

মহেশ ভাট তার এই ছবির জন্য এমন নতুন মুখই খুঁজছিলেন। জন এবং ক্যাটরিনাকে তিনি নিজের ছবির জন্য সই করিয়ে নেন।

ছবির শ্যুটিংও শুরু হয়। কিন্তু তৃতীয় দিন সেটে গিয়ে ক্যাটরিনা জানতে পারেন, তাকে ছবি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তার বদলে তারা শর্মা নামে আরেক নবাগতকে নেওয়া হয়েছে।

কেন এ রকম করা হল তার সঙ্গে? ক্যাটরিনা জানতে পারেন যে, তার কো-স্টার জনের অনুরোধেই এমন হয়েছে।

ক্যাটরিনা তখন ভালভাবে হিন্দি বলতে পারতেন না। তার হিন্দি উচ্চারণও ভাল ছিল না। সে কারণেই জন নাকি তার সঙ্গে অভিনয় করতে রাজি ছিলেন না।

এই ঘটনা অবশ্য লাকি হয়ে ওঠে ক্যাটরিনার কাছে। কারণ এরপরই ক্যাটরিনার পরিচয় হয় সালমানের সঙ্গে।

সালমানই ক্যাটরিনার ক্যারিয়ারের দায়িত্ব নিয়ে নেন। সমস্ত প্রযোজক এবং পরিচালকের কাছে ক্যাটরিনার জন্য কথা বলতে শুরু করেন তিনিই।

বড় ব্যানারের ছবির প্রস্তাব পেতে শুরু করেন ক্যাটরিনা। কখনও সালমান, তো কখনও অক্ষয় কুমারের মতো সুপারস্টারের সঙ্গে অভিনয় করতে শুরু করেন তিনি।

এর পর ২০০৯ সালে ফিল্ম ‘নিউ ইয়র্ক’-এর সুযোগ আসে তার কাছে। আর এই ফিল্মে তার বিপরীতে ফের একবার জনকে নেওয়া হয়।

ক্যাটরিনা চাইলেই প্রতিশোধ নিতে পারতেন, জনকে এই ফিল্ম থেকে বাদ দেওয়ার শর্ত রাখতেই পারতেন। কিন্তু তিনি তা করেননি। বরং তারই বিপরীতে অভিনয় করে ‘প্রতিশোধ’ নিয়েছিলেন সেই অপমানের। সূত্র: আনন্দবাজার

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here