ট্রাম্পকে করোনা প্রণোদনা বিলে সই করার আহ্বান বাইডেনের

4

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কংগ্রেসে পাস হওয়া করোনাভাইরাস প্রণোদনা বিলে স্বাক্ষর করার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এ বিলে স্বাক্ষর দেরি করলে এর ‘ধ্বংসাত্মক পরিণতির’ ব্যাপারে ট্রাম্পকে সতর্ক করেছেন তিনি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, আগামী শনিবারের মধ্যে ট্রাম্প স্বাক্ষর করে বিলটিকে আইনে পরিণত না করলে বেকারদের ভাতা ও উচ্ছেদের উপর নিষেধাজ্ঞাসহ অনেককিছুর উপরই এর প্রভাব পড়বে। কয়েক মাসের দরকষাকষির পর গত সপ্তাহে পাস হওয়া বিলে ৯০ হাজার কোটি ডলারের যে প্রণোদনা প্যাকেজ রয়েছে তাতে বছরে ৭৫ হাজার ডলারের নিচে আয় করা মার্কিনিদের এককালীন ৬০০ ডলার দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছিল। ডোনাল্ড ট্রাম্প এককালীন এ অর্থের পরিমাণ ২ হাজার ডলার করতে চাইছেন; যদিও কংগ্রেসের রিপাবলিকানরাই এখন বিলে সংশোধনী আনতে রাজি হচ্ছেন না।

কংগ্রেসে পাস হওয়া বিলে করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্তদের অর্থনৈতিক প্রণোদনার সঙ্গে ১ দশমিক ৪ ট্রিলিয়ন ডলারের কেন্দ্রীয় বাজেটও জুড়ে দেওয়া হয়েছিল। ট্রাম্প স্বাক্ষর না করায় এখন আগামী মঙ্গলবার থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের একাংশ অচল হওয়ার ঝুঁকিতে পড়েছে। মঙ্গলবারের আগেই আইনপ্রণেতারা কেন্দ্রীয় বাজেট নিয়ে আলাদা বিল পাস করে এ সংকট সামাল দিতে পারেন; তবে সেই বিলে করোনাভাইরাসজনিত প্রণোদনার অংশ থাকবে না। দ্রুত বিলটি পাসের পর সেটিকে আইনে পরিণত করতে হলেও ট্রাম্পের স্বাক্ষরের প্রয়োজন পড়বে।

মার্কিন নির্বাচনে বাইডেনের কাছে হারা ট্রাম্পের অনড় অবস্থানের কারণে বেকারভাতা ও নতুন প্রণোদনার চেক না পেলে প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ মার্কিনি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে জানিয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম।

গতকাল শনিবার ট্রানজিশন ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে বাইডেন কড়া ভাষায় ট্রাম্পের বিলে সই করতে অস্বীকৃতি জানানোর সমালোচনা করেন। একে ‘দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতা’ বলেও অভিহিত করেন বাইডেন।

বাইডেন বলেন, ‘আজ বড়দিনের পরেরদিন; অথচ লাখো পরিবার জানে না তারা শেষ পর্যন্ত তাদের প্রয়োজন মেটাতে পারবে কিনা, কেননা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কংগ্রেসে বিপুল ব্যবধানে পাস হওয়া এবং দুই দলের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশের সমর্থন পাওয়া একটি অর্থনৈতিক সহায়তা বিলে সই করেননি।’

বিলটি তৈরিতে যে কংগ্রেস সদস্যরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে যে ধরনের ছাড় দিয়েছেন বাইডেন তার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পেরও উচিত তাদের সঙ্গে যোগ দেওয়া; লাখো আমেরিকান যেন তাদের টেবিলে খাবার রাখতে পারে এবং ছুটির এ মৌসুমে মাথার উপর ছাদ রাখতে পারে তা নিশ্চিত করা।’

বাইডেনের আহ্বানের তোয়াক্কা করছেন ট্রাম্প। এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, ‘আমি কেবল চাই আমাদের মহান মানুষেরা যেন বিলে থাকা অতি নগণ্য ৬০০ ডলারের পরিবর্তে ২ হাজার ডলার পায়।’

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here