ড্রয়ে শেষ রোমাঞ্চকর ঢাকা ডার্বি

4

স্পোর্টস ডেস্ক : সাড়ে চার বছর পর আবারো ঢাকার বাইরের দর্শকরা স্টেডিয়ামে বসে দেখল দেশের ফুটবলের ঐতিহ্যবাহী দ্বৈরথ। রোমাঞ্চকর ঢাকা ডার্বি শেষ হয়েছে অমীমাংসিতভাবে। বৃহস্পতিবার বিপিএল ফুটবলের ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও ঢাকা আবাহনীর সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে ঢাকা মোহামেডান।

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে শেষবার ঢাকার বাইরে মুখোমুখি হয়েছিল আবাহনী-মোহামেডান। সেই ম্যাচে ২-১ গোলে জিতেছিল আবাহনী। চলতি মৌসুমে মোহামেডানের ঘরের মাঠ কুমিল্লার ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়াম। দেশের ফুটবলের মর্যাদার লড়াই দেখতে স্টেডিয়ামে হাজির হয়েছিলেন হাজার দশেক ফুটবলপ্রেমী। আবাহনীর চেয়ে শক্তিতে পিছিয়ে থাকলেও মাঠের লড়াইয়ে সেটা বুঝতে দেয়নি মোহামেডান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে আগের দুই ম্যাচে হার মোহামেডানের।
ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই আবাহনীকে চেপে ধরে সাদা-কালোরা। তবে ধারার বিপরীতে ফ্রান্সিসকো তোরেসের গোলে লিড নেয় আবাহনী। চতুর্দশ মিনিটে কারভেন্স বেলফোর্টের ব্যাক হেড থেকে হেডেই বল জালে জড়ান ফ্রান্সিসকো। সমতায় ফিরতে সাদা-কালোরা সময় নেয় তিন মিনিট। সুলেমান দিয়াবাতের গোলে সমতা ফেরায় মোহামেডান। আক্রমণে মোহামেডানের আধিপত্য থাকলেও ঠিকই লিড নেয় আবাহনী। ৩৩তম মিনিটে জুয়েল রানার গোলে আবারো এগিয়ে যায় আকাশী-নীলরা। মোহামেডান সমতা ফেরায় ৬৬তম মিনিটে। আবারো মোহামেডানের ত্রাতা মালির স্ট্রাইকার সুলেমান দিয়াবাতে।

টানা তিন ম্যাচ জয়ের পর থামল আবাহনীর জয়রথ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আবাহনীর সংগ্রহ ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে মোহামেডান। ৪ ম্যাচের সবকটিতে জিতে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বসুন্ধরা কিংস।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here