নতুন রূপে ধোনি

4

অনলাইন ডেস্ক : এবার পুরো নতুন রূপে দেখা যাবে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের উইকেট কিপার, ব্যাটসম্যান মাহেন্দ্র সিং ধোনিকে। তাকে দেখা যাবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্যারাসুট রেজিমেন্টে। সেখানে এরই মধ্যে তিনি দু’ মাসের প্রশিক্ষণ শুরু করেছেন। এমন খবরে অনেকে তার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এর জবাব দিয়েছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তিনি বলেছেন, এমএস ধোনির কোনো নিরাপত্তা প্রয়োজন নেই। তিনিই নাগরিকদের নিরাপত্তা দেবেন।

ভারতের বিভিন্ন মিডিয়ায় এ খবর প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, এমএস ধোনি তার প্রতিশ্রুতি রেখেছেন।
তিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্যারাসুট রেজিমেন্টের একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অনারারি)। আগামী ৩১ জুলাই থেকে ১৫ই আগস্ট পর্যন্ত তিনি তার ইউনিটে দায়িত্ব পালন করবেন। এমএস ধোনি একজন বেসামরিক ব্যক্তি হওয়ায় এবং এ খবর বৃহস্পতিবার ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ্যে উদ্বেগ দেখা দেয়। এ নিয়ে পরের দিন শুক্রবার এনডিটিভির সঙ্গে কথা বলেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তিনি বলেন, ধোনি তার দায়িত্ব পালনে সুসজ্জিত। যখন ভারতীয় কোনো নাগরিক সেনাবাহিনীর পোশাক পরেন তখন তাকে তার কাজ যথাযথভাবে করতে প্রস্তুত থাকতে হয়। এই পোশাকই তাকে বলে দেয় কি দায়িত্ব তার ওপর। এমএস ধোনি তার মৌলিক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। আমরা জানি, তিনি বাকি কাজ শেষ করার সামর্থ্য রাখেন। তিনিই প্রচুর মানুষকে এখন রক্ষা করবেন। কারণ, তিনি ১০৬ টেরিটোরিয়াল আর্মি ব্যাটালিয়ানের (পারা) সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন। এটা একটি চমৎকার ব্যাটালিয়ন। ধোনির কাজের ওপর আস্থা আছে গ্যারিসনের।

উল্লেখ্য, কাশ্মির উপত্যকায় ভিক্টর ফোর্সের অংশ হিসেবে থাকবেন ধোনি। আরও বলা হয়েছে, অফিসারের অনুরোধ ও সেনা সদর দফতরের অনুমোদনক্রমে ধোনিকে টহল, গার্ড ও পোস্ট ডিউটি দেয়া হবে। তিনি অবস্থান করবেন সেনা সদস্যদের সঙ্গে। এ দায়িত্ব পালনের জন্য তিনি ক্রিকেট টিম থেকে দু’মাসের ছুটি নিয়েছেন। এর আগে ২০১৫ সালে তিনি আগ্রা প্রশিক্ষণ শিবিরে ভারতীয় বিমান বাহিনীর বিমান থেকে ৫ বার প্যারাস্যুট জাম্পিং সম্পন্ন করেন এবং একজন দক্ষ প্যারাসুটার হিসেবে স্বীকৃতি পান।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here