নারী আন্দোলনে উত্তাল মেক্সিকো, বিক্ষোভের মুখে প্রেসিডেন্ট

1

অনলাইন ডেস্ক : মেক্সিকোয় এক বছরে ফেমিসাইড বা নারী খুনের সংখ্যা অন্তত ৯৩৯। এরপরই নারীসুরক্ষা আন্দোলন নিয়ে উত্তাল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে মেক্সিকোতে। তুমুল বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেস ওব্রাদর।

আন্দোলনকারীদের আটকাতে রাজধানী মেক্সিকো সিটিতে একটি ধাতব দেওয়াল বানিয়েছিলেন তিনি। নাম দিয়েছিলেন ‘শান্তি প্রাচীর’। কিন্তু শান্তির পরিবর্তে আন্দোলনে নতুন করে ইন্ধন জুগিয়েছে এই পাঁচিল। দিন দিন বাড়ছে প্রতিবাদের তীব্রতা। শান্তি প্রাচীর ভাঙতে উদ্যত হলে প্রতিবাদীদের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ হয় পুলিশের। ৬২ জন পুলিশকর্মী এবং ১৯ সাধারণ মানুষ আহত হয়েছেন এই ঘটনায়।

আন্দোলনকারীদের দাবি, ড্রাগ মাফিয়া অধ্যুষিত অঞ্চলে নামমাত্র সুরক্ষা নিয়ে ঘোরেন প্রেসিডেন্ট। অথচ নারীবাদী আন্দোলনে ভয় পাচ্ছেন তিনি। এমনকি, নারীহত্যা এবং যৌন হিংসা নিয়ে দৃষ্টিপাতও করছেন না। প্রতিবাদে হাজি এক নারীকে চিৎকার করে প্রতিবাদ করতে শোনা গেল, ‘যখন আমায় ধর্ষণ করা হচ্ছিল তখন কোথায় ছিলেন?’
সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হওয়ার ভয়ে ধাতব পাঁচিলটি বানিয়েছিলেন ওব্রাদর। প্রতিবাদীরা বলছেন, প্রেসিডেন্ট যেমন এই সম্পত্তি রক্ষায় যত্নবান হয়েছেন ঠিক ততটাই যত্নবান হওয়া উচিত তাদের প্রতি। তাদের স্লোগান বলছে, ‘কাল বাঁচার জন্যই আজ লড়াই।’

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here