নির্বাচনের পর অ্যান্থনি ফাউসিকে বরখাস্তের হুমকি ট্রাম্পের

4

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শুরু হওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে সেদেশের সংক্রামক রোগ বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউসিকে বরখাস্ত করার হুমকি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। ফ্লোরিডায় রোববার রাতে তার নির্বাচনী সমাবেশ হয়। সেখানে ‘ফায়ার ফাউসি’ স্লোগানের সঙ্গে তিনিও যেন মিলে যান। মিয়ামি অপা-লোকা বিমানবন্দরে সমবেত হয়েছিলেন তার বেশ কিছু সমর্থক। তিনি সেখানে উপস্থিত হওয়ার পর ‘ফায়ার ফাউসি’ স্লোগান ওঠে। এ সময় ট্রাম্প কয়েক সেকেন্ড তাদেরকে স্লোগান দেয়ার সুযোগ করে দেন। তারপর তিনি নিজে বক্তব্য রাখেন। স্লোগানের জবাবে তিনি বলেন, আপনারা এ দাবি অন্য কারো কাছে জানাবেন না।

নির্বাচনের পরে আমাকে সামান্য সময় দিন, আমিই এ কাজ করে দেব। এমন পরামর্শ দেয়ার জন্য আমি আপনাদের প্রশংসা করি। ফাউসি ইস্যুতে ট্রাম্প বলেন, তিনি প্রচুর ভুল করেছেন। তিনি একজন চমৎকার মানুষ। কিন্তু বিরাট ভুল করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন গার্ডিয়ান।
এর আগে ওয়াশিংটন পোস্টকে একটি সাক্ষাতকার দেয়ায় অ্যান্থনি ফাউসির বিরুদ্ধে মন্তব্য করেছে হোয়াইট হাউজ। তারা বলেছে, ফাউসি রাজনীতি করছেন। ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক করোনা ইস্যুতে দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বিষয়ে জানতে চাইলে ফাউসি বলেন, জনস্বাস্থ্যের দিক থেকে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছেন জো বাইডেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এটাকে দেখছেন ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে। তার মধ্যে একটি হলো অর্থনীতি। অন্যটি হলো দেশের সবকিছু খুলে দেয়ার বিষয়। তিনি আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জনস্বাস্থ্যের চর্চা ও আচরণ দ্রুততার সঙ্গে পাল্টে দেয়া দরকার। এতেই তিনি রাজনীতি করছেন বলে হোয়াইট হাউজের অভিযোগ। তার সঙ্গে যুক্ত হলো এবার সরাসরি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মন্তব্য। তিনি প্রকাশ্যেই হুমকি দিলেন অ্যান্থনি ফাউসিকে।
ডা. অ্যান্থনি ফাউসি বিশ্বে সংক্রামক ব্যাধি বিষয়ক যে কয়েকজন বিজ্ঞানী বা বিশেষজ্ঞ আছেন, তার মধ্যে অন্যতম। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব এলার্জি এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (এআইএআইডি)-এ তিন দশকেরও বেশি সময় পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত যে টাক্সফোর্স গঠন করেছেন তার শীর্ষ বিশেষজ্ঞদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি প্রকাশ্যে জনস্বাস্থ্য বিষয়ক অনেক কথা বলেছেন। এতে এমন সব তথ্য ফুটে উঠেছে, যা দেখে বা শুনে মনে হয় ট্রাম্প করোনা ভাইরাস ইস্যুতে মিথ্যে কথা বলছেন বা বলেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here