নির্বাচনে হেরেছেন, এবার স্ত্রীকে হারাচ্ছেন ট্রাম্প?

4

অনলাইন ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, এবার কী তিনি তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পকেও হারাতে চলেছেন? এটি নিছক গুঞ্জন নয়, ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক দুই সহযোগী এমন দাবি করেছেন। আর এরপর ট্রাম্পের সংসারে ভাঙনের জল্পনা জোরালো হচ্ছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়, ২০১৬ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তখন মেলানিয়া ট্রাম্পের একটি বক্তব্য বেশ সাড়া ফেলেছিল। তার এক বন্ধু দাবি করেছিলেন তিনি তার স্বামীকে নিয়ে বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে জানান, তিনি কখনো আশা করেননি যে তার স্বামী জিতবেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর মেলানিয়া ট্রাম্প নিউইয়র্ক থেকে ওয়াশিংটনে আসার জন্য পাঁচ মাস অপেক্ষা করেছিলেন। ট্রাম্প-মেলানিয়া দম্পতির সন্তান ব্যারনের স্কুলের কার্যক্রম শেষ করার জন্য তিনি এ অপেক্ষা করেছিলেন। কিন্তু ট্রাম্পের সাবেক সহযোগী স্টেফানি ওল্কওফ দাবি করেছেন, এ সময়ে মেলানিয়া তার স্বামী ট্রাম্পের সঙ্গে বিবাহ পরবর্তী চুক্তির জন্য আলোচনা করেন, আর তা হলো ব্যারনকে ট্রাম্পের ভাগ্যের সমান ভাগিদার করতে হবে।

স্টেফানি ওল্কওফ আরও অভিযোগ করেন, হোয়াইট হাউসে ডোনাল্ড ট্রাম্প আলাদা বেডরুমে থাকতেন। মেলানিয়া ট্রাম্পের সঙ্গে তার সম্পর্ক ‘লেনদেনমূলক বিবাহ’তে পরিণত হয়- ট্রাম্পের আরেক সাবেক সহযোগী আরেক ধাপ এগিয়ে গিয়ে মন্তব্য করেছেন। ওমারোসা মেনিগট নিউম্যান নামে ট্রাম্পের সাবেক সহযোগীর মন্তব্য, ট্রাম্প ও মেলানিয়ার ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবন শেষ হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, ‘মেলানিয়া প্রতিটি মিনিট গুণছেন, ট্রাম্প তার কার্যালয় ছাড়লেই তিনি তাকে ডিভোর্স দেবেন। মেলানিয়া যদি মার্কিন প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ে থাকা অবস্থায় তাকে ছেড়ে যান ও অবমাননা করেন তবে তিনি মেলানিয়ার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ পাবেন।’

তবে এমন বিতর্ক উড়িয়ে দিয়েছেন ৫০ বছর বয়সী মেলানিয়া। তিনি জানিয়েছেন তার ৭৪ বছর বয়সী স্বামী ট্রাম্পের সঙ্গে দারুণ সম্পর্কে রয়েছেন। তাদের মাঝে কোনো ঝামেলাও নেই।

ডোনাল্ড ট্রাম্প তার দ্বিতীয় স্ত্রী মারলা ম্যাপলসের সঙ্গে চুক্তি করেছিলেন, তিনি ট্রাম্পের সমালোচনা করে কোনো বই লিখতে পারবেন না ও সাক্ষাৎকার দিতে পারবেন না। আইনজীবী ক্রিস্টিনা প্রিভাইট বলেন, মেলানিয়ার সঙ্গেও হয়তো ট্রাম্প এমনটি করেছেন, সে জন্য তিনি চুপ রয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here