পঞ্চম শ্রেণি পাস করেই এমবিবিএস ডাক্তার!

2

অনলাইন ডেস্ক : স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমোদন ছাড়াই রংপুর নগরীর ধাপ এলাকায় চলছিল সেবা প্রাইভেট হাসপাতাল। ভুয়া ডাক্তার পরিচয়ে রোগীদের প্রতারিত করার অভিযোগে হাসপাতালটির মালিক রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সেই সঙ্গে ভ্রাম্যমাণ আদালত এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে তাকে। হাসপাতাল থেকে সব রোগীকে অন্যত্র স্থানান্তর করে সিলগালা করার আদেশ দেওয়া হয়েছে। র‌্যাব-১৩ কোম্পানি কমান্ডার হাফিজার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব জানায়, রংপুর নগরীর ধাপ এলাকায় চারতলা ভবন ভাড়া নিয়ে সেবা প্রাইভেট হাসপাতাল পরিচালনা করে আসছিল অভিযুক্ত ভুয়া ডাক্তার। স্বাস্থ্য বিভাগের কোনও অনুমোদন ছাড়াই অবৈধভাবে রোগী ভর্তি করে চিকিৎসার নামে রোগীদের প্রতারিত করে আসছিলেন তিনি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) বিকেলে হাসপাতালটিতে অভিযান চালায়। হাসপাতালের মালিক রফিকুল ইসলাম নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে রোগী দেখে ব্যবস্থাপত্র প্রদান করছিলেন। তার কোনও ডাক্তারি সনদ আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি একপর্যায়ে স্বীকার করেন পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত লেখা পড়া করেছেন। কেন এমবিবিএস পদবি ব্যবহার করছেন জানতে চাইলে কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি।

র‌্যাব-১৩ কোম্পানি কমান্ডার হাফিজার রহমান জানান, হাসপাতালে তল্লাশি চালিয়ে বেশ কয়েকটি ব্যাংকের চেকবই জব্দ করা হয়েছে। ডাক্তার পদবি ব্যবহার করে প্রতিটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলেছেন তিনি। এছাড়া চিকিৎসা দেওয়ার নামে ব্যবস্থাপত্র প্যাডে নিজের নাম জুড়ে দিয়ে রোগীদের প্রতারিত করে আসছিলেন।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরিন জাহান জানান, সেবা হাসপাতালের নামে স্বাস্থ্য বিভাগের কোনও অনুমোদন না থাকায় অভিযানে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ভুয়া ডাক্তার পরিচয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, চিকিৎসা নিতে ভর্তি থাকা রোগীদের অন্যত্র স্থানান্তর করার পর হাসপাতালটি সিলগালা করে দেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here