বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বাড়ানোর আভাস ট্রাম্পের

2

ইব্রাহীম চৌধুরী, নিউইয়র্ক : আমেরিকার বর্ধিত বেকার ভাতা সপ্তাহে ৬০০ ডলার নিয়ে আইনপ্রণেতাদের মধ্যে এখনো কোনো সমঝোতা হয়নি। গত ৩১ জুলাই এ ভাতার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এ কারণে উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন অনেকেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি প্রয়োজনে নির্বাহী আদেশ জারি করবেন। তবে বর্ধিত ভাতা সপ্তাহে একই থাকবে কি না এবং তা কত দিনের জন্য বৃদ্ধি পাবে, তা বলেননি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

করোনার সংক্রমণে বিপর্যস্ত আমেরিকার অর্থনীতি। গত মার্চ মাসে লকডাউনে যাওয়ার পরই ইতিহাসের সবচেয়ে বড় নাগরিক সহযোগিতার আইন পাস করা হয়। নাগরিকদের নগদ এককালীন অর্থ দেওয়া ছাড়াও কর্মহীনদের নিয়মিত বেকার ভাতার সঙ্গে সপ্তাহে ৬০০ ডলার করে দেওয়া হয়। বর্ধিত এ ভাতার মেয়াদ ৩১ জুলাই শেষ হয়েছে। আমেরিকার অর্থনীতি এখনো পুরোদমে চালু হয়নি। লোকজন এখনো কর্মহীন। লোকজন বাসা ভাড়া, বাড়ির মর্টগেজ দেওয়াসহ নিত্যদিনের ব্যয় সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যবসা ধরে রাখতে পারছেন না।

বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বাড়ানোর দাবি উঠেছে বেশ আগে থেকেই। এ নিয়ে আইনপ্রণেতারা দর-কষাকষি করছেন। ডেমোক্রেটিক পার্টি জনপ্রিয়—এ দাবির সঙ্গে স্থানীয় সরকারকে বর্ধিত ফেডারেল সহযোগিতা দেওয়ার প্রস্তাব উপস্থাপন করেছে। ডেমোক্র্যাটদের প্রস্তাবে এককালীন নগদ অর্থ দেওয়াসহ বর্ধিত ফুড স্ট্যাম্প, ভাড়াটেদের সরাসরি সহযোগিতার কথা আছে। এমন উদারনৈতিক সহযোগিতা প্রদানে রিপাবলিকান–নিয়ন্ত্রিত সিনেট সদস্যরা একমত হতে পারছেন না। ডেমোক্রেটিক পার্টির পক্ষ থেকেও ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি অবশ্য বলেন, এ সপ্তাহের মধ্যেই এমন একটা সমঝোতায় তাঁরা পৌঁছাবেন বলে আশাবাদী।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ৪ আগস্ট বলেন, প্রয়োজনে তিনি নির্বাহী আদেশ জারি করবেন। এ আদেশে বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বাড়াবেন, ভাড়াটেদের উচ্ছেদ না করার মেয়াদ বাড়িয়ে দেবেন এবং কর্মজীবীদের মজুরি থেকে কর কেটে রাখা স্থগিত করবেন।

হোয়াইট হাউসের সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি অন্যান্য বেশ কিছু বিষয় বিবেচনা করছেন। নির্বাহী আদেশ দিয়ে বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বাড়িয়ে কৃতিত্বটা নেওয়ার চেষ্টা করছেন ট্রাম্প। আগেই বলেছেন, ডেমোক্র্যাটরা রাজি হচ্ছে না বলেই এ নিয়ে আইন পাসে বিলম্ব হচ্ছে। হোয়াইট হাউস থেকে স্বল্প সময়ের জন্য বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বাড়ানোর কথা বলা হয়েছিল। ডেমোক্র্যাটদের প্রস্তাব ছিল কর্মজীবীদের কাজে না ফেরা পর্যন্ত এর মেয়াদ বাড়ানো হোক।

রিপাবলিকানদের মতে, নিয়মিত বেকার ভাতার সঙ্গে বর্ধিত বেকার ভাতা পাওয়ার কারণে লোকজনের মধ্যে কাজে ফেরার কোনো তাড়না থাকবে না। অনেকেই নিয়মিত মজুরির চেয়ে সপ্তাহে বেশি পাচ্ছেন বলে লোকজন ঘরে বসে থাকতেই পছন্দ করবে। রিপাবলিকানদের এমন অনড় অবস্থানে কর্মজীবীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা দেখা দেয়। কংগ্রেস এ সপ্তাহের মধ্যে ঐকমত্যে না পৌঁছাতে পারলে এ মাসে আর তা হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এ সপ্তাহের পরই সবাই নিজ নিজ এলাকায় ফিরে যাবেন। আইনপ্রণেতারা ব্যস্ত হয়ে পড়বেন নিজ নিজ দলের জাতীয় কনভেনশন নিয়ে।

প্রেস কনফারেন্সে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কথায় কর্মজীবীরা মনে করছেন, বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ বৃদ্ধি পাচ্ছে। নাগরিক সহযোগিতার প্রথম আইনে অব্যবহৃত অর্থ থেকে এর মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নির্বাহী আদেশ জারি করতে পারেন।

পুনর্নির্বাচনের জন্য জনমতে পিছিয়ে থাকা ডোনাল্ড ট্রাম্প কর্মজীবীদের আনুকূল্য পেতে এমন উদারনৈতিক অবস্থানে যাচ্ছেন বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও তাঁর দলের লোকজন বর্ধিত বেকার ভাতার মেয়াদ সপ্তাহে ৬০০ ডলারের চেয়ে কমানোর চেষ্টা করছেন। এমনকি কাজে ফিরে যাওয়ার জন্য বোনাস দেওয়ার কথা বলছেন। সবাইকে পাশ কাটিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কর্মজীবীদের পক্ষে একটা নির্বাহী আদেশ জারি করারই ইঙ্গিত দিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here