বেতন কমে সংসার চালাতে হিমশিম, পদত্যাগ চান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

11

অনলাইন ডেস্ক : বেতন কম হওয়ায় সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তাই তিনি আগামী বসন্তে পদত্যাগ করতে চান।

গত বছর জুলাইয়ে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার আগে বরিস জনসন বর্তমান উপার্জনের চেয়ে অনেক বেশি আয় করতেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তার সহকর্মীদের কাছে এমন অভিযোগ করেছেন।

তার দল কনজার্ভেটিভের কিছু এমপি এ তথ্য দিয়েছেন। আর এ খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য মেট্রো ও দ্য মিরর।

খবরে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বরিস জনসনের বার্ষিক আয় এক লাখ ৫০ হাজার ৪০২ পাউন্ড। অথচ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি পত্রিকায় কলাম লিখতেন। সেমিনারে বক্তব্য করতেন। এতে তিনি মাসে আয় করতেন ২৩ হাজার পাউন্ড। সে হিসেবে তার বার্ষিক আয় ছিলো দুই লাখ ৭৬ হাজার পাউন্ড।

সংবাদমাধ্যম মিররে বলা হয়, বরিস জনসন কখনো এক মাসে দুটি সেমিনারে বক্তব্য দিয়ে আয় করেছিলেন এক লাখ ৬০ হাজার পাউন্ড।

তবে হোয়াইটহল সূত্র সংবাদমাধ্যমকে বলেছে, পদত্যাগের আগে আরও ছয় মাস অপেক্ষা করতে চান প্রধানমন্ত্রী। যাতে তিনি ব্রেক্সিট পুরোপুরি সম্পন্ন করতে পারেন এবং মহামারির সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি থেকে যুক্তরাজ্যকে রক্ষা করতে পারেন।

একজন এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীকে তার ৬ সন্তানের জন্য বছরে খরচ দিতে হয় ৪২ হাজার ৫০০ পাউন্ড। এই খরচ নিয়ে উদ্বিগ্ন তিনি।

অন্যদিকে বিবাহ বিচ্ছেদের চুক্তি অনুযায়ী সাবেক স্ত্রী মেরিনা হুইলারকে একটা বড় অংকের অর্থ দিতে হয়। সব মিলিয়ে অর্থনৈতিক সমস্যায় আছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here