বৈরুতে বিস্ফোরণ নিয়ে জুলাইয়ে সতর্ক করা হয়েছিল

2

অনলাইন ডেস্ক : লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ নিয়ে গত জুলাই মাসে দেশটির প্রধানমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্টকে সতর্ক করা হয়েছিল। লেবাননের নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এমনটি দাবি করা হয়েছে।

সরকারকে সতর্ক করার দুই সপ্তাহের মধ্যে বৈরুতের বন্দরে ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের বিস্ফোরণ ঘটে।

গত ২০ জুলাই লেবাননের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিষয়ক অধিদপ্তর থেকে প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন এবং প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াবকে একটি চিঠি পাঠানো হয়। ওই চিঠিতে কী ছিল সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি।

তবে লেবাননের একজন জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা কর্মকর্তা দাবি করেছেন, জানুয়ারিতে শুরু হওয়া একটি বিচার বিভাগীয় তদন্তের ফলাফলের সংক্ষিপ্তসার ছিল ওই চিঠিতে। যেখানে অবিলম্বে রাসায়নিক পদার্থগুলোকে সুরক্ষিত করার তাগিদ দেওয়া হয়েছিল।

ওই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, এই রাসায়নিকগুলো চুরি করে সেগুলো দিয়ে যে কেউ সন্ত্রাসী হামলা চালাতে পারতো। এ নিয়ে তদন্তের পর একটি চূড়ান্ত প্রতিবেদন সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছিল। বলা হয়েছিল, বিস্ফোরণ ঘটলে বৈরুত ধ্বংস হয়ে যাবে।

গত ৪ আগস্টের এই বিস্ফোরণে কমপক্ষে ১৬৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৬ হাজারের বেশি মানুষ। এছাড়া প্রায় ৬ হাজারের মত ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এ ঘটনার জেরে সাধারণ মানুষের অব্যাহত বিক্ষোভের মুখে দেশটির সরকার প্রধান পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। এর আগেই দেশটির বিচারমন্ত্রী, তথ্যমন্ত্রী এবং পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী পদত্যাগ করেন। কিন্তু গোটা মন্ত্রিসভার পদত্যাগের জন্য চাপ বাড়ছিল। অনেকেই লেবাননের নেতাদের বিরুদ্ধে অবহেলা ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে এই বিস্ফোরণের জন্য তাদের দায়ী করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here