ভ্যাকসিন গ্রহণের পর পুতিনের মেয়ের শরীরে অ্যান্টিবডি

1

অনলাইন ডেস্ক : নিজের দেশের প্রস্তুত করা করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণের পর তার মেয়ের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

রশিয়া ২৪ নিউজ চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি একথা জানান বলে বৃহস্পতিবার স্পুটনিক নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

গত ১১ আগস্ট বিশ্বের প্রথম করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা দেন পুতিন। এরপর তার এক মেয়ের শরীরে ওই ভ্যাকসিন প্রয়োগের কথাও জানান তিনি।

সাক্ষাতকারে পুতিন বলেছেন, এই ভ্যাকসিন একটি স্থিতিশীল প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে; আমাদের বিশেষজ্ঞদের কাছে ব্যাপারটি অত্যন্ত স্পষ্ট। এর মাধ্যমে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে; যা আমার মেয়ের ক্ষেত্রেও ঘটেছে। এটি ক্ষতিকর নয়। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, আমার মেয়ে ভালো আছে।

তিনি জানান, ভ্যাকসিন গ্রহণের প্রথম দিন তার মেয়ের শরীরে তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস উঠেছিল আর দ্বিতীয় দিন তা হয় ৩৭ ডিগ্রির কিছুটা বেশি।

পুতিন জানান, ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার ২১ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর তাপমাত্রা সামান্য বেড়ে যায়। তবে সব ঠিক আছে।

করোনার বিরুদ্ধে লড়তে রাশিয়ার তৈরি আরেকটি ভ্যাকসিন আসন্ন সেপ্টেম্বরে প্রস্তুত হয়ে যাবে বলেও জানান প্রেসিডেন্ট পুতিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here