মসজিদে বিস্ফোরণে ইমামসহ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২২

4

অনলাইন ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লা এলাকায় মসজিদে এসি বিস্ফোরণ থেকে আগুনে দগ্ধ হয়ে ইমামসহ নিহতের সংখ্যা বেড়ে শনিবার রাত ১১ টা পর্যন্ত ২২ জনে দাঁড়িয়েছে। বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ১৭ জন ভর্তি আছেন। তবে তাদের অবস্থাও সঙ্কটাপন্ন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ইমামসহ আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন-মসজিদের ইমাম আবদুল মালেক (৫৫), মো. মিজান ওরফে নিজাম (৪০) ও নাদিম (৪৫)।

শনিবার রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই তিনজনের মৃত্যু হয় বলে নিশ্চিত করেন ডা. পার্থ শঙ্কর পাল। বিস্ফোরণের ঘটনায় এ নিয়ে ২২ জনের মৃত্যু হল। নিহতদের মধ্যে বায়তুস সালাত জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন ও দুই শিশু রয়েছে।

মৃত অন্য ১৮ জন হলেন- রিফাত (১৮), মোস্তফা কামাল (৩৪), জুবায়ের (১৮), সাব্বির (২১), কুদ্দুস ব্যাপরী (৭২), হুমায়ুন কবির (৭০), ইব্রাহিম (৪৩), মোয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন (৪৮), জুনায়েদ (১৭), জামাল (৪০), জুবায়ের (৭), জুয়েল, রাসেল (৩৪), নয়ন (২৭), রাশেদ (৩০), কাঞ্চন হাওলাদার (৫০), মাইনউদ্দিন (১২) ও বাহারউদ্দিন (৫০), মো. বাহাউদ্দীন (৫৫)।

শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৬ জনের মৃতদেহ হস্তান্তর করা হয় স্বজনদের কাছে। বাকিদের হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে অর্ধশতাধিক মুসল্লি দগ্ধ হন। বিস্ফোরণে মসজিদের ছয়টি এসি পুড়ে গেছে। জানালার কাচ উড়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আধা ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here