যুক্তরাজ্যে করোনায় মৃত্যুর দায় নিলেন বরিস জনসন

3

অনলাইন ডেস্ক : ব্রিটেনে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ পেরিয়েছে। এতে শোকপ্রকাশ করে সমস্ত মৃত্যু ও অন্যান্য বিপর্যয়ের দায় স্বীকার করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। গত মঙ্গলবার করোনা আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৬৩১ জনের মৃত্যু হয় ব্রিটেনে। এতেই করোনায় দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ১৬২ জনে।

ডাউনিং স্ট্রিটে এক সংবাদ সম্মেলনে করোনার এই মৃত্যুমিছিলের সব দায়ভার নিজের ঘাড়ে নেন বরিস। তিনি বলেন, যে সমস্ত প্রাণ ঝরে গেল, তার প্রত্যেকটির জন্য আমি গভীর ভাবে মর্মাহত। অবশ্যই একজন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সবকিছুর পূর্ণ দায়ভার আমি নিচ্ছি।

তার ভাষ্যমতে, এই ভয়ংকর পরিসংখ্যানের হিসাব করা সত্যিই দুঃখজনক। মৃতদের দেখতে আত্মীয়রা আসতে পারছেন না। একবার বিদায় জানানোর সুযোগও পাচ্ছেন না তাঁরা। আমরা এই পরিস্থিতিতে সবাই একসঙ্গে মিলে লড়াই করতে পারি। যতটা সম্ভব বাড়িতে থেকে ও টিকা নিয়ে আমাদের সামানে এগোতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অনেকটা হতাশ দেখাচ্ছিল ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে। কয়েকদিন আগেই বরিস দাবি করে বলেন, গবেষণায় যতটুকু দেখা গেছে, তা থেকে মনে করা হচ্ছে করোনার এই নয়া স্ট্রেন আগের স্ট্রেনের থেকে অনেক বেশি প্রাণঘাতী। কেবল দ্রুত ছড়ানোই নয়, তার পাশাপাশি লন্ডন ও দক্ষিণপূর্ব ব্রিটেনে প্রথম দেখা মেলা এই স্ট্রেন থেকে মৃত্যুর হারও বেশি। এই ব্যাপারে বেশ কিছু প্রমাণও মিলেছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ইংল্যান্ডের মুখ্য মেডিক্যাল অফিসার প্রফেসর ক্রিস হুইট্টি আশা প্রকাশ করে বলেন, আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে ধীরে ধীরে সংক্রমণ কমবে। কেবল আমাদের সতর্ক থাকতে হবে আমরা যেন লকডাউনের নিষেধাজ্ঞাকে কোনো রকম অবহেলা না করি। সেই সঙ্গে কোনো গুজবে কান না দেওয়ারও অনুরোধ করেন তিনি।

সূত্র: বিবিসি, আলজাজিরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here