যুক্তরাষ্ট্রে বিলাসবহুল বাড়ি কিনে কোন ইঙ্গিত দিলেন মেসি?

4

স্পোর্টস ডেস্ক : চলমান মৌসুম শেষে লিওনেল মেসি বার্সেলোনা ছাড়বেন কি না নিশ্চিত নয়। সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে মেসি বলেছেন, নিজেই জানেন না মৌসুম শেষে তার গন্তব্য কোথায় হবে। যুক্তরাষ্ট্রে মেজর সকার লীগে (এমএলএস) খেলা এবং দেশটির বিলাসবহুল জীবনের স্বাদ উপভোগের ইচ্ছের কথাও জানিয়েছেন ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার। তবে সেটা ভবিষ্যতের ভাবনা। এরই মধ্যে বৃটিশ ও স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে, ৭.২৫ মিলিয়ন পাউন্ডে যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামিতে বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছেন মেসি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৮৩ কোটি টাকার সমান।

স্প্যানিশ রেডিও কাদেনা সার বুধবার জানিয়েছে, ‘২০২৩ পর্যন্ত বার্সেলোনাতেই থাকছেন মেসি। এরপর পাড়ি জমাতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রে। মেসির এমন সিদ্ধান্তের পেছনে রয়েছে সন্তানদের পড়াশোনার বিষয়টি।
বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার আগে সেখানকার স্কুলে সন্তানদের পড়ানোর ইচ্ছে মেসির।’ মেসি অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছেন মিয়ামির পোরশে টাওয়ারে। ৬০তলার এই ভবনের বিশেষত্ব হল ‘গাড়িতে বসেই লিফটের মাধ্যমে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে যাওয়া যাবে’। পোরশে টাওয়ার থেকে দেখা যাবে সমুদ্রের নৈসর্গিক দৃশ্য। মিয়ামিতে রয়েছে এমএলএস লীগের ক্লাবও। ইংলিশ কিংবদন্তি ডেভিড বেকহ্যামের মালিকানাধীন ইন্টার মিয়ামি এবছর থেকে খেলা শুরু করেছে এমএলএসে। পোরশে অ্যাপার্টমেন্ট থেকে গাড়িতে ২৫ মিনিটের দূরত্ব ইন্টার মিয়ামি স্টেডিয়াম।

ক্যারিয়ারের সায়হ্নে এসে অনেক তারকা ফুটবলারই পাড়ি জমান এমএলএসে। মোটা অঙ্কের বেতনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিলাসবহুল জীবন এর অন্যতম কারণ। পেলে, ডেভিড বেকহ্যাম, আন্দ্রেয়া পিরলো, ডেভিড ভিয়া, ইব্রাহিমোভিচরা খেলেছেন ‘তারকাদের বৃদ্ধাশ্রম’ নামে পরিচিত মেজর সকার লীগে।

গত আগস্টে বার্সা ছাড়তে চেয়েছিলেন মেসি। ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি লোভনীয় প্রস্তাব দিয়েছিল আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে। তিন বছর ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে খেলার পর শেষ দুই বছর মেজর সকার লীগে খেলার কথা উল্লেখ ছিল সিটিজেনদের ওই প্রস্তাবে। সিটি ফুটবল গ্রুপের মালিকানাধীন নিউইয়র্ক সিটি এফসি খেলে এমএলএসে। ইংলিশ ট্যাবলয়েড দ্য সান সম্প্রতি জানিয়েছে, মেসিকে আবারো একই প্রস্তাব দিতে চলেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here