সংসদে বক্তৃতা দিতে গিয়ে বসে পড়লেন বাসার আল আসাদ

6

অনলাইন ডেস্ক : সংসদ অধিবেশনে বক্তৃতা দিতে হঠাৎ থেমে গেলেন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ। আইন প্রণেতাদের উদ্দেশ্যে বললেন, আমাকে এক মিনিট বসতে হবে। আমার রক্তচাপ কমে গেছে। বুধবার এ ঘটনা ঘটে।

এর আগে আধঘণ্টা ধরে সংসদে কথা বলেন তিনি। এক সময় ৫৪ বছর বয়সী বাসারের চেহারায় ক্লান্তির ছাপ ধরা পড়ে। সামনে রাখা গ্লাস থেকে বার দুয়েক পানিও খান তিনি। বলেন, ‘আমার রক্তচাপ কমে গেছে। আমার পানি খাওয়া দরকার।’ তিনি বলেন, তার মিনিট দুয়েক বিশ্রাম দরকার। সাংসদরা যেন কিছু মনে না করেন। খবর আল জাজিরার

এর পর তিনি হল থেকে বেরিয়ে যান। কিছু সময় ফিরে এসে কৌতুক করে বলেন, ডাক্তাররা রোগী হিসেবে খুবই খারাপ। আমি গতকাল বিকেল থেকে কিছুই খাইনি। আমার শরীরে সুগার ও সল্টের টান পড়েছে। তাই হয়তো এমনটা ঘটেছে।

বাসার একজন প্রশিক্ষিত চক্ষু চিকিৎসক। বুধবার পার্লামেন্টে বাসার মাস্ক পরা অবস্থায় কথা বলেন। সাংসদদেরও সবার মুখে মাস্ক ছিল।

সিরিয়ায় সম্প্রতি করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে। তবে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে অনেক কম। এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩২৭ জন আক্রান্ত ও ৫৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সিরিয়ার সরকার ভালভাবেই করোনা নিয়ন্ত্রণ করছে বলেই মনে হচ্ছে। তবে বেসরকারি হিসেবে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা আরো বেশি হতে পারে।

গতমাসে সিরিয়ার নির্বাচনের পর বাসার প্রথম সংসদে ভাষণ দেন। ২০১১ সালের নির্বাচনের পর এটা যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় তৃতীয় নির্বাচন।

২০১১ সালে আসাদ শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন ও লড়াই শুরু হয়ে শিগগিরই তা গৃহযুদ্ধের রূপ নেয়। গৃহযুদ্ধে অসংখ্য লোক মারা যায় এবং উদ্বাস্তু হয়ে পড়ে।

সংসদে ভাষণে বাসার আল আসাদ তার দেশের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন করে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here