সেমিতে ইংল্যান্ড

5

স্পোর্টস ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমির টিকিট কাটলো স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তারা নিউজিল্যান্ডকে ১১৯ রানের বড় ব্যবধানে হারায়। ৩০৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৮৬ রানে অল আউট হয়ে যায়। ইংলিশ বোলিং তোপের মুখে ৪৫ ওভারেই শেষ হয় তাদের ইনিংস। মার্ক উড নেন ৩ উইকেট। আর ১ টি করে উইকেট পান ক্রিস ওকস, জোফরা আর্চার, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশীদ ও বেন স্টোকস। কিউইদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন টম লাথাম। আর ২৮ রান আসে রস টেইলরের ব্যাট থেকে।

এর আগে, রয়, বেয়ারস্টোদের ব্যাটিংয়ের তাণ্ডব মনে করিয়ে দিল ভারত বাংলাদেশের ম্যাচের কথা।

ভারতের মতোই টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বিশ্বকাপ আসরের ৪১তম ম্যাচে ঝড় নামিয়ে দিয়েছিলেন দুই ইংরেজ ব্যাটসম্যান। বিশ ওভার পূর্ণ হওয়ার আগেই দুই ওপেনার মিলে করলেন ১২৩। তাতেই বোঝা হয়ে গেছে ইংল্যান্ড আজও সাড়ে তিনশর বেশি রান করে ব্ল্যাকক্যাপসদের কাঁধে বড় বোঝা চাপিয়ে দেবে। তবে সেটা আর হলো না। ইংল্যান্ড শুরুটা যেমন করেছিল শেষটা ধরে রাখতে পারেনি। নিউজিল্যান্ডের বোলাররা শেষ দিকে চেপে ধরায় টার্গেট দেয় ৩০৬ রানের।

এর আগে ম্যাচে টস জেতা ইংল্যান্ড পাওয়ার প্লের প্রথম ১০ ওভারে বেশ সর্তক শুরু করে। কোনো উইকেট না হারিয়ে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৬৭ রান। জেসন রয় অর্ধশতক করে ফেরেন। ৬০ রান করে ফেরেন কিউই পেসার জিমি নিশামের বলে। আর জো রুট সেট হলেও খেলতে পারেননি বড় ইনিংস। করেন ২৪ রান। আউট হন টেন্ট বোল্ডের বলে। আর আরেক ওপেনার জনি বেয়ারস্টো খেলছেন বেশ। দেখা পান শতকের। ৯৫ বলে করেন শতক। যাতে ছিলো ১৪টি চার ও ১টি ছয়ের মার। এরপর শতকের পর বেশি বড় হয়নি তার ইনিংস ১০৬ করেই ফেরেন তিনি। এই গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি পান কিউই পেসার ম্যাট হেনরি। এরপর জস বাটলার ফেরেন বোল্টের বলে। সাজঘরে ফেরার আগে করেন ১১ রান। ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের শেষ দিকে শুধু দলপতি মরগানই ৪২ রান করেন। আর কেউই লম্বা ইনিংস খেলতে পারেননি। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে নিশাম, হেনরি ও বোল্ট দুইটি করে উইকেট তুলে নেন। এছাড়া স্যাটনার ও সাউদি একটি করে উইকেট পান।

ডারহামের রিভারসাইড কাউন্টি গ্রাউন্ড স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ম্যাচটি। বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় ম্যাচটি শুরু হয়।

এর আগে বিশ্বকাপে দুদল ৮ বার মোকাবেলা করে। ৫ বারই জয় পায় ইংল্যান্ড। ৩টিতে জয় নিউজিল্যান্ডের। আর মোট ৮৩ বারের দেখায় নিউজিল্যান্ড জয় পায় ৪১ ম্যাচে ও ইংল্যান্ড ৩৬ ম্যাচে।

এবারের বিশ্বকাপে সমান ৯ ম্যাচ খেলেছে দুদল। নিউজিল্যান্ডের পয়েন্ট ১১ আর ইংল্যান্ডের ১২। নিউজিল্যান্ড ৯ ম্যাচের ৫ টিতে জয় পায়। আর পরাজয় ৩ ম্যাচের পাশাপাশি পরিত্যক্ত হয় একটি খেলা। আর স্বাগতিক ইংল্যান্ড ৬ ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি হার দেখে ৩ ম্যাচে।

ইংল্যান্ড স্কোয়াড
ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), জনি বেয়ারস্টো, জস বাটলার, জোফরা আর্চার, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জো রুট, জ্যাসন রয়, বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস এবং মার্ক উড।

নিউজিল্যান্ড স্কোয়াড
কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলস, রস টেইলর, টম লাথাম (উইকেটরক্ষক), কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, জিমি নিশাম, ম্যাট হেনরি, টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্ট।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here