হিমবাহ গলনে উত্তরাখণ্ডে মৃত প্রায় ১৫০

1

অনলাইন ডেস্ক : হিমালয়ের হিমবাহ গলে ভারতের উত্তরাখন্ড রাজ্যে প্রায় দেড়শ মানুষ মারা গেছেন। ওই বরফ গলে একটি বাঁধে প্রচণ্ড গতিতে আঘাত করে আজ রোববার। এতে সেখানে মুহূর্তের মধ্যে বন্যা সৃষ্টি হয়। ফলে মানুষজন কিছু সরিয়ে নিরাপদ আশ্রয় খুঁজে নেয়ার সময় পায়নি। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। উত্তরাখ- রাজ্যের মুখ্য সচিব ওম প্রকাশ বলেছেন, এখন পর্যন্ত কত মানুষ মারা গেছেন তা নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না। তবে মৃতের সংখ্যা ১০০ থেকে দেড়শ হবে। একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, তিনি মাটি, পাথর আর পানির মিশ্রণের প্রচ- এক গর্জন শুনতে পান।
সেদিকে তাকিয়ে দেখেন বিদ্যুতগতিতে তা ছুড়ে আসছে একটি নদী দিয়ে। রাইনি গ্রামের বাসিন্দা সঞ্জয় সিং রানা বলেছেন, এটা এতটা তীব্র গতিতে ছুটে আসছিল যে, কাউকে সতর্ক করার কোনো সময়ই ছিল না। আমার মনে হয়েছিল, আমাদেরকেও ভাসিয়ে নিয়ে যাবে। স্থানীয়দের আশঙ্কা, এ সময় কাছাকাছি একটি পানিবিদ্যুত প্রকল্পে কাজ করছিলেন একদল লোক। তাদেরকে এই পানির তোড় ভাসিয়ে নিয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, কি পরিমাণ মানুষ নিখোঁজ হয়েছেন সে সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই আমার। উল্লেখ্য, উত্তরের বেশ কিছু জেলায় উচ্চ সতর্কতা দিয়েছে ভারত। স্থানীয় পর্যায়ের লোকজন যে ফুটেজ শেয়ার করেছেন তাতে দেখা যাচ্ছে পানির সর্বগ্রাসী রূপ একটি ড্যামে প্রচ- জোরে আঘাত করে তা ভাসিয়ে নেয়। সেই সঙ্গে এর সামনে যা পড়েছে তাই ভাসিয়ে নিয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি ছোট্ট ড্যামের দিকে পানির তোড় বাড়ছে। এক পর্যায়ে তা নির্মাণ সামগ্রি ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। উত্তরাখন্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত বলেছেন, আলোকনন্দা নদীতে নন্দপ্রয়াগ এলাকায় পানির েস্রাত সাধারণ পর্যায়ে থাকে। কিন্তু এখন সেখানে স্বাভাবিকের চেয়ে এক মিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে পানি। আস্তে আস্তে তা কমে আসছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here